সিয়াম

সর্বশেষ রাতে লাইলাতুল কদর তালাশ করা।

Alorpath 1 month ago Views:173

লাইলাতুল কদর তােমরা রমযানের অবশিষ্ট নয় দিনে তালাশ কর, অথবা সর্বশেষ রাতে তালাশ কর।


উতাইবাহ ইবনে আব্দুর রহমান বলেন, আমার পিতা আব্দুর রহমান আমাকে বলেছেন: “আবু বকরের নিকট লাইলাতুল কদর উল্লেখ করা হল, তিনি বললেন: আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে শুনেছি, তা কখনাে আমি শেষ দশদিন ব্যতীত তালাশ করি না। আমি তাকে বলতে শুনেছি: লাইলাতুল কদর তােমরা রমযানের অবশিষ্ট নয় দিনে তালাশ কর, অথবা সর্বশেষ রাতে তালাশ কর।” তিনি বলেন : আবু বাকরাহ রমযানের বিশ দিন সারা বছরের ন্যায় স্বাভাবিকভাবে সালাত আদায় করতেন, যখন শেষ দশক পদার্পণ করত, যখন তিনি খুব ইবাদত করতেন।” (তিরমিযী-৭৯৪, তিনি বলেন, হাদীসটি হাসান-সহিহ, আহমদ- ৫/৩৯, নাসায়ি ফিল কুবরা- ৩৪০৩, বাযযার- ৩৬৮১, তায়ালিসি- ৮৮১, তারবানি ফি মুসনাদিশ শামিয়্যিন: ১১১৯)


মুআবিয়া ইবনে আবু সুফিয়ান (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন : রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: “তােমরা লাইলাতুল কদর সর্বশেষ রাতে তালাশ কর।” ইবন খুজাইমাহ এ সম্পর্কে একটি অধ্যায় রচনা করেন: “রমযানের শেষ রাতে লাইলাতুল কদর তালাশ করার নির্দেশ প্রসঙ্গে অধ্যায়, যদিও বছরের যে কোনাে সময় সে রাত হতে পারে।” (আলবানির সহীহ হাদীস সংকলন- ১৪৭১, সহীহ ইবনে খুজাইমা- ২১৮৯)

শিক্ষা ও মাসায়েল ৪টিঃ

১. লাইলাতুল কদর শেষ দশকে, এর মধ্যে অধিক সম্ভাব্য হচ্ছে বেজোড় রাত, তবে অবশিষ্ট রাতের বিবেচনায় জোড় রাতে হতে পারে যদি মাস ত্রিশ দিনের হয়, এ জন্য মুসলিমদের উচিত শেষ দশকের প্রত্যেক রাতে লাইলাতুল কদর তালাশ করা।

২. সাহাবিদের লাইলাতুল কদর অন্বেষণ করা ও তাতে রাত জাগার আগ্রহ।


৩. কখনাে রমযানের সর্বশেষ রাতে লাইলাতুল কদর হতে পারে, যেমন বিভিন্ন হাদীস তার স্থানান্তর হওয়া প্রমাণ করে।

৪. উনত্রিশে রমযান অথবা ইমামের কুরআন খতমের পর সালাত, কুরআন। তিলাওয়াত ও রাত জাগরণে অলসতা না করা, কারণ মূল উদ্দেশ্য লাইলাতুল কদর, যা সর্বশেষ রাতে হতে পারে।



মন্তব্য